ফেন্সিডিলসহ নারী আ. লীগ নেত্রী গ্রেপ্তার

ফেন্সিডিলসহ নারী আ. লীগ নেত্রী গ্রেপ্তার

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার নারী আওয়ামী লীগ নেত্রী সোনিয়া আক্তার ফেন্সিডিলসহ আটক হয়েছেন। তার বিরুদ্ধে দলের পরিচয়ের আড়ালে ইয়াবা ও ফেন্সিডিল বিক্রির অভিযোগও রয়েছে।
বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) উপজেলার গোবিন্দাসী পূর্বপাড়াতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে জেলা মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। গ্রেপ্তার দেখিয়ে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অভিযানের সময় সোনিয়ার স্বামী মো. রাজ্জাক পালিয়ে যান।

জানা গেছে, সোনিয়ার স্বামী আব্দুর রাজ্জাক একজন সাবেক যুবলীগ নেতা। স্বামী-স্ত্রী মিলে দলীয় পরিচয়ের আড়ালে মাদক বিক্রি করতেন। এর আগেও পুলিশ কয়েকবার তাদের গ্রেপ্তার করেছিলো।
মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক মো. সিরাজুল ইসলামের নেতৃত্বে বৃহস্পতিবারের অভিযান পরিচালিত হয়। তিনি জানান, গোবিন্দাসী গ্রামের মো. রাজ্জাকের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তার স্ত্রী নারী আওয়ামী লীগ নেত্রী সোনিয়াকে আটক করা হয়। এ সময় তার বাড়ি থেকে ৬ বোতল ফেন্সিডিল পাওয়া যায়। পরে ভূঞাপুর থানায় নিয়ে তাকে পুলিশের কাছে তুলে দেওয়া হয়।

তিনি জানান, সোনিয়া আক্তার দীর্ঘদিন ধরে মাদক কেনা-বেচা করছিলেন। সুস্পষ্ট তথ্য থাকায় তাদের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে। তার স্বামী রাজ্জাক অভিযানের বিষয়টি টের পেয়ে পালিয়ে গেছেন। সোনিয়াকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার পর তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে তোলা হয়। পরে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠান।

উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলিফ নূর মিনি বলেন, মাদকসহ সোনিয়ার গ্রেপ্তারের বিষয়টি জেনেছি। অসুস্থ থাকায় আপাতত এ ব্যাপারে তিনি আর কথা বলতে পারেনি।
পরে বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপ করবেন বলে জানিয়েছেন আলিফ নূর মিনি।
পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএম

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 ThemesBazar.Com