বনানীতে বিএনপির কর্মসূচিতে হামলা, আহতের খবর জানে না পুলিশ

রাজধানীর বনানী কাঁচাবাজার এলাকায় মোমবাতি জ্বালিয়ে কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপি। শান্তিপূর্ণভাবে সে কর্মসূচি শেষে সেখানে একটি হড়োহুড়ির ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ জানতে পেরেছে।

শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাতে বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরে আজম মিয়া এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন,বনানী কাঁচাবাজার এলাকায় বিএনপির একটি পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি ছিল। সেখানে তারা মোমবাতি জ্বালিয়ে কর্মসূচি পালন করেন। সুষ্ঠুভাবে তাদের কর্মসূচি শেষ হয়। অনুষ্ঠানের শেষে সেখানে একটি হুড়োহুড়ি ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ খবর পেয়েছে। তবে এই ঘটনায় কেউ আহত হয়েছেন, এরকম অভিযোগ এখনো আমরা পাইনি। তবে লোকমুখে শোনা যাচ্ছে বিএনপি নেতা সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, তাবিথ আউয়ালসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

তবে কী কারণে হুড়োহুড়ির ঘটনা ঘটেছে, এখনো পুলিশ কিছুই জানতে পারেনি। বিস্তারিত জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। এ পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ নিয়ে আসেনি।

এদিকে বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাত পৌনে ৮টার দিকে হামলা করে। ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও লাঠির আঘাতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে তাবিথ আউয়াল গুরুতর আহত হয়েছেন, তাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জ্বালানি তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি এবং পুলিশের গুলিতে দলের তিন কর্মীর নিহতের প্রতিবাদে বনানীতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচি ঘোষণা করেছিল বিএনপি। বনানীর কাকলী থেকে গুলশান-২ নম্বর গোলচত্বর পর্যন্ত সন্ধ্যা সাতটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত এই কর্মসূচি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এক ঘণ্টার বেশি সময় আগে রাস্তায় জড়ো হন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

হামলায় আহত সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল জানান, আমাদের কর্মসূচি শুরু হওয়ার আগেই রাস্তার অপর পাশে ছাত্রলীগ, যুবলীগ মিছিল করছিল। কিন্তু যখন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের বক্তব্য প্রায় শেষ পর্যায়ে তখন রাস্তা পেরিয়ে এ পাশে এসে আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালায়। এতে বহু নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। নারী কর্মীরাও আহত হয়েছেন। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ছিলেন তাবিথ আউয়াল, তিনি গুরুতর আহত হয়েছেন।

গত আগস্টে ভোলায় পুলিশের গুলিতে বিএনপির দুই নেতাকর্মী নিহত হন। এরপর ২২ আগস্ট থেকে টানা কর্মসূচি শুরু করে দলটি। এর মধ্যে ১ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জে পুলিশের গুলিতে এক কর্মী নিহত হওয়ার পর ঢাকার ১৬টি জায়গায় ২৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। তারই অংশ হিসেবে শনিবার বনানীতে কর্মসূচি পালন করে দলটি।

About admin

Check Also

নির্বাচনে আসলে আসুক না আসলে ফাকা মাঠেই গোল: শেখ হাসিনা

নির্বাচনে অংশ নেওয়া বা না নেওয়া রাজনতিক দলের ইচ্ছাধীন বিষয় বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *