বিমান বাহিনী থেকে চাকরচ্যুত হয়েছিলেন রিয়াজ গোপন তথ্য প্রকাশ করলেন সেই ওয়াহিদ, রিয়াজ বললেন সে হচ্ছে ‘তাসনিম খলিলের বংশধর’

ঢাকাই সিনেমার খুবিই জনপ্রিয় একজন অভিনেতা রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ সিদ্দিক। তবে পর্দায় ‘রিয়াজ’ নামেই অধিক পরিচিতি পেয়েছেন তিনি। ব্যক্তিগত নানা বিষয়ে মাঝে অনেকগুলো বছর ক্যামেরার বাইরে ছিলেন গুণী এই অভিনেতা। এরপর আবারো অভিনয়ে ফিরেছেন তিনি। এদিকে ‘অপারেশন সুন্দরবন’ ছবির পোস্টার উন্মোচন অনুষ্ঠানে নিজের অভিনেতা হওয়ার গল্প শোনালেন রিয়াজ। সেখানে বক্তৃতা দেওয়ার সময় রিয়াজ বলেন, সিনিয়রদের না জানিয়ে বিখ্যাত নাটক ‘কোথাও কেউ নেই’র শেষ পর্ব দেখতে যাওয়ায় বিমান বাহিনী থেকে বহিষ্কার হন।

এ ঘটনার পর মোহাম্মদ ওয়াহিদ উন নবী নামে এক ব্যক্তি রিয়াজকে নিয়ে একটি বিতর্কিত লেখা সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করেন। তিনি নিজেকে এই নায়কের কোর্সমেট দাবি করে বলেন, রিয়াজ আসল সত্য লুকিয়েছেন। নাটক বা সিরিয়াল দেখার জন্য তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়নি। প্রশিক্ষণে ব্যর্থ হওয়ায় তাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়। নায়কের ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও আপত্তিকর মন্তব্য করেছেন তিনি।

এ নিয়ে গণমাধ্যমের কাছে মুখ খুললেন রিয়াজ। তিনি এই যুবককে চেনার কথা স্বীকার করেছেন। রিয়াজ বলেন, ‘আমি তাকে চিনি। তিনি অবসরপ্রাপ্ত স্কোয়াড্রন লিডার ওয়াহিদ উন নবী। আমার জুনিয়র তিনি সেই কোর্সে আমাদের সাথে ছিলেন।
রিয়াজ আরো বলেন, “বর্তমানে ওয়াহিদ যে সংগঠনের সাথে জড়িত সেটি স্বাধীনতা বিরোধীদের সংগঠন। তাদের একমাত্র কাজ মিডিয়ায় গুজব ছড়ানো। সে বিদেশে পলাতক। এর আগে তাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী গ্রেফতার করেছে। তার নামে এখনও মামলা চলছে।আমি স্বাধীনতার পক্ষে কথা বলি বলে আমার বিরুদ্ধে গুজব ছড়াচ্ছে, এমনকি প্রধানমন্ত্রীর নামেও মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে।
উল্লেখ্য, ১৯৯৫ সালে ‘বাংলার নায়ক’ নামক একটি সিনেমায় অভিনয়ের মধ্যে দিয়ে বড় পর্দায় প্রথম বারের মতো পা রাখেন রিয়াজ। বর্তমানে তার ঝুলিতে রয়েছে একাধিক ব্যবসায় সফল সিনেমা।

About admin

Check Also

স্কুলে ডেকে এনে প্রেমিককে জাপটে ধরে রোমান্সে মাতলেন ছাত্রী, এলাকাজুড়ে হইচই

সিনেমায় রোমান্টিক দৃশ্য হরহামেশাই দেখা যায়, যে সময় প্রেমিক প্রেমিকার মনেও রোমান্স জাগে। এটাই স্বাভাবিক। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *