গোসলের সময় উঁকি ও রাস্তাঘাটে ওড়না টেনে ধরার অভিযোগে তরুণের বিরুদ্ধে মামলা

রংপুরের মিঠাপুকুরে স্কুলছাত্রীকে ইভটিজিং করার অভিযোগে এক যুবকের বিরুদ্ধে মামলা করেছে তার পরিবার। অভিযুক্ত যুবককে এখনও গ্রেফতার করা হয়নি। উল্টো সে মামলার একজন সাক্ষীকে বেদম মারধর করেছে।

মামলার উদ্ধৃতি দিয়ে মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান জানান, উপজেলার লতিবপুর ইউনিয়নের অভিরামপুর হিন্দুপাড়ার স্কুলপড়ুয়া শিক্ষার্থীকে গোসলের সময় উঁকি দিয়ে দেখা, স্কুলে যাওয়ার সময় রাস্তাঘাটে ওড়না টেনে ধরাসহ বিভিন্ন যৌন হেনস্থার অভিযোগে মামলা হয়েছে একই এলাকার বিদ্যুৎচন্দ্রের (১৮) নামে। মামলাটি করেছেন ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাবা। পুলিশ কর্মকর্তা জানান, তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করার পাশাপাশি এবং আসামিকে গ্রেফতারের অভিযানও চলছে।

ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাবার অভিযোগ, বিষয়টি জানার পর বিদ্যুতের পরিবারের সাথে আলোচনা করি, সে যেন আমার মেয়েকে উত্ত্যক্ত না করে। কিন্তু বিদ্যুতের পরিবার প্রভাবশালী হওয়ায় এ বিষয়ে তারা কোনো উদ্যোগ নেয়নি। পরে থানায় মামলা করেন তিনি।

ভুক্তভোগীর বাবা বলেন, এখন পর্যন্ত অভিযুক্ত বিদ্যুৎসহ অন্যান্যদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এরই মধ্যে মামলার সাক্ষী শিমুলকে বুধবার বাড়িতে ডেকে নিয়ে মারধর করেন বিদ্যুৎ। মারধরের শিকার শিমুল এখন মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। তিনি বলেন, এ ঘটনার পর থেকে আমার মেয়েসহ আমরা সবাই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।

About admin

Check Also

নির্বাচনে আসলে আসুক না আসলে ফাকা মাঠেই গোল: শেখ হাসিনা

নির্বাচনে অংশ নেওয়া বা না নেওয়া রাজনতিক দলের ইচ্ছাধীন বিষয় বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *