মিয়ানমারের দুটি গোলা বাংলাদেশে : উস্কানি দেখছেন না মোমেন

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে শূন্যরেখার কাছাকাছি বাংলাদেশ ভূখণ্ডের ভেতরে মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর দুটি গোলা এসে পড়ার ঘটনা মোটেই উস্কানিমূলকও নয় বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেছেন, এর পেছনে কোনো উদ্দেশ্য নেই।

রোববার (৪ সেপ্টেম্বর) প্রধানমন্ত্রীর নয়াদিল্লি সফর নিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

ড. মোমেন বলেন, মিয়ানমারে ওখানে সংঘাত হচ্ছে। ইন্টারনাল সংঘাত হচ্ছে। সেই সংঘাতের কারণে আমাদের এখানেও দুইটা বোমা পড়েছে। ওরা বলেছে, এগুলো স্ট্রে। হঠাৎ করে চলে এসেছে। কোনো উদ্দেশ্য নেই এর পেছনে। উস্কানিও আমাদের দিচ্ছে না। তারা (মিয়ানমার) বলেছে, এটা এখানে পড়ে গেছে।

এ ঘটনায় রোববার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত উ অং কিয়াউ মো-কে ডাকার প্রসঙ্গ টানেন মোমেন। তিনি বলেন, আমরা আজকে তাদের রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছিলাম। আমরা আমাদের উদ্বেগের কথা এবং প্রতিবাদ জানিয়েছি। সুতরাং আমরা সঠিক পথেই আছি।

মিয়ানমারের কোনো নাগরিক যেন বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে, সেজন্য বাংলাদেশ সীমান্তে শক্ত অবস্থান নিয়েছে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা আমাদের নিজেদের অবস্থান শক্ত করেছি। ওখানে বেশ সংঘাত হচ্ছে। যার ফলে আমাদের ভয় হচ্ছে, ওখান থেকে লোক যদি আবার আমার দেশে ঢোকার চেষ্টা করে। আমরা এজন্য আমাদের যত বর্ডার গার্ড অন্যান্য সিকিউরিটি সবাইকে সতর্ক করে দিয়েছি। কেউ যেন এখানে না আসতে পারে।

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর যুদ্ধবিমান থেকে শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টায় বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে শূন্যরেখার কাছাকাছি বাংলা‌দেশ সীমা‌ন্তে এসে দুটি গোলা প‌ড়ে।

এর আগে, গত সপ্তাহে রোবাবর ও বৃহস্পতিবার মিয়ানমার থেকে মর্টার শেল এসে পড়ে বাংলা‌দে‌শে। ওই ঘটনায় মিয়ানমা‌রের রাষ্ট্রদূত উ অং কিয়াউ মো-কে ডে‌কে নোট ভার্বালের মাধ্যমে কড়া প্রতিবাদ ও তীব্র নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ।

About admin

Check Also

মহিলা আ.লীগের সভাপতি চুমকি, সম্পাদক শীলা

আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন মহিলা আওয়ামী লীগের নতুন নেতৃত্ব ঘোষণা করা হয়েছে। এতে সভাপতি পদে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *