মেয়েকে ধর্ষণ, অভিযোগ জানাতে গিয়ে পুলিশ কর্মকর্তার ধর্ষণের শিকার মা

মেয়েকে ধর্ষণ করা হয়েছে, পুলিশে এমন অভিযোগ জানাতে গিয়ে তদন্তকারী কর্মকর্তার হাতেই ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক মা। ভারতের উত্তরপ্রদেশের কনৌজ জেলায় এই ঘটনায় অনুপ মৌর্য নামে অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তাকে সাসপেন্ড করে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বর্তমানে জেল হেফাজতে রয়েছেন তিনি।

আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৭ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। এ নিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তার মা। যে পুলিশ কর্মকর্তা এই ঘটনা সামলাচ্ছিলেন, তিনিই তাকে ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন ওই নারী। ইতোমধ্যেই অনুপ মৌর্য নামে অভিযুক্ত ইনস্পেক্টরকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী নারীর অভিযোগ, গত ২৮ অগস্ট ওই পুলিশ কর্মকর্তা তার বাসার কাছে একটি পেট্রল পাম্পের সামনে তাকে দেখা করতে বলেন। তখন ঘটনাস্থলে যান ওই নারী। তার পর তাকে নিজের বাসায় নিয়ে যান পুলিশ কর্মকর্তা। সেখানে নারী ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।

যদিও তদন্তকারী কর্মকর্তার দাবি, তিনি কিছু নথিপত্রে সই করানোর জন্য ওই নারীকে বাসায় নিয়ে যান।

কনৌজের পুলিশ সুপার কানওয়ার অনুপম সিংহ বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে এই অভিযোগ ঠিক বলে মনে করা হচ্ছে। তদন্তকারী কর্মকর্তাকে সাসপেন্ড ও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি জেল হেফাজতে রয়েছেন।’

About admin

Check Also

নির্বাচনে আসলে আসুক না আসলে ফাকা মাঠেই গোল: শেখ হাসিনা

নির্বাচনে অংশ নেওয়া বা না নেওয়া রাজনতিক দলের ইচ্ছাধীন বিষয় বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *