সালমান রুশদির পর এবার তসলিমার পালা?

সালমান রুশদির পরে এবার তসলিমা নাসরিনকে নিশানা করা হচ্ছে। সম্প্রতি এক হত্যার হুমকিতে চরম আতঙ্কে ভুগছেন এ নারীবাদী লেখিকা।
বুধবার আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদন অনুসারে, ‘এর আগে অনেকবার প্রাণনাশের হুমকি পেলেও ভয় পাননি নারীবাদী লেখিকা তসলিমা নাসরিন। কিন্তু, সম্প্রতি তার এক টুইটে তাকে দেওয়া হত্যার হুমকির বিষয়ে জানা গেছে। এখন এ বিষয়টিতে চরম আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন তসলিমা।’

স্বাধীনতা দিবসের সন্ধ্যায় তসলিমা তার টুইটার অ্যাকাউন্টে লিখেন, ‘তোমরা মানুষ খুন করো?’ এমন টুইটে হঠাৎ উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ওই টুইটের সঙ্গে তিনি জুড়ে দিয়েছিলেন জনৈক জেন শেখ-এর একটি টুইট। সেখানে তিনটি ছুরির ছবি দিয়ে তসলিমাকে ট্যাগ করে বলা হয়েছে ‘পরের নিশানায় তুমি।’ সাহিত্যিক সালমান রুশদি ছুরিকাহত হওয়ার পরে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিলেন তসলিমা। বিশ্বজুড়ে যারা ধর্মের সমালোচনা করে, তাদের জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন তিনি।

ওই সময় তসলিমা নাসরিন বলেছিলেন, বিশ্বের সেরা নিরাপত্তা বেষ্টনী ভেদ করে রুশদির ওপরে সফল হামলা করার পরে মৌলবাদীরা উল্লাসিত হয়ে নতুন উদ্যমে ঝাঁপিয়ে পড়বে। কিন্তু এত দ্রুত যে টুইটারে তার প্রাণনাশের হুমকির বন্যা বইবে, তা বোধ হয় এ নারীবাদী লেখিকা নিজেও ভাবেননি।
তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানের উগ্রবাদী গোষ্ঠী তেহরিক-ই-লাব্বাইক-এর প্রধান খাদিম হুসেন রিজভির একটি ভিডিও ক্লিপ করে আমাকে পাঠানো হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, একটি বিরাট জনসমাবেশের সামনে দাঁড়িয়ে রিজভি আমার ও সালমান রুশদি মুণ্ডপাত করার বিষয়ে বলছেন। রিজভি বলেছেন যে আমাদের বই তার কাছে আছে। মহানবী হযরত মোহাম্মদ (স.)-কে আমরা অসম্মান করেছি। বদলা হিসেবে আমাদের হত্যা করা হবে। এরপর ঝাঁকে ঝাঁকে টুইট করে প্রাণনাশের হুমকি আসতে থাকে। আমি ইন্টারনেট ঘেঁটে দেখি রিজভি দু’বছর আগেই মারা গিয়েছে। অর্থাৎ পরিকল্পনা করে রিজভির পুরনো ভিডিও ফিরিয়ে এনে উগ্রবাদীদের উত্তেজিত করা হচ্ছে এখন। রুশদির ওপরে হামলার পর, এবার আমাকে নিশানা করা হচ্ছে।’

তসলিমা জানিয়েছেন, এর আগেও বারবার প্রাণনাশের হুমকি পেয়েছেন এ লেখিকা। কিন্তু এবারে যেটা পার্থক্য তা হলো এ তেহরিক-ই-লাবাইক শুধুমাত্র একটি উগ্রবাদী গোষ্ঠী নয়, তারা সরাসরি বিভিন্ন অপকর্মের সঙ্গে যুক্ত। আইএস-এর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রেখে চলে এরা।’
এ কারণে বিষয়টি আপাতত নিজের নিরাপত্তারক্ষীদের জানিয়েছেন এ নারীবাদী লেখিকা। এ বিষয়ে তার বক্তব্য হলো, ‘এখন কী করব ভেবে পাচ্ছি না। মাথা কাজ করছে না। শুধু উগ্রবাদীদের হুমকিতে ততটা ভয় নেই। কিন্তু আইএস-এর মতো ভয়ঙ্কর গোষ্ঠী যেকোনো নিরাপত্তা বেষ্টনী ভেদ করতে পারে।” ভারতের স্বাধীনতা দিবসে বাড়ির ছাদে দেশটির জাতীয় পতাকা লাগিয়েছিলেন তসলিমা। এম ছবি পোস্ট করেছিলেন তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। লিখেছিলেন, ‘হোম সুইট হোম!’
এখন তিনি বলছেন, ‘এমন হত্যার হুমকি আসার পর ছবি ডিলিট করলাম। ওই ছবি দেখে আমার বাড়িও চিনে নেওয়া সম্ভব।’

About admin

Check Also

শপথগ্রহণের পরই এরদোয়ানের সঙ্গে কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ানের সঙ্গে কথা বলেছেন মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম। বৃহস্পতিবার নিজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *