দগ্ধ ৮ জনের কেউই বেঁচে রইলো না

রাজধানীর উত্তরার তুরাগ কামারপাড়া এলাকায় রিকশার গ্যারেজে বিস্ফোরণে দগ্ধ আটজনের মধ্যে একমাত্র বেঁচে থাকা যুবকেরও মৃত্যু হয়েছে।
শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) শুক্রবার রাত ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
২৫ বছর বয়সী ওই যুবকের নাম শাহিন মিয়া। তার শরীরের ৪০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল।

ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন এস এম আইউব হোসেন জানান, উত্তরার তুরাগ কামারপাড়া এলাকায় রিকশার গ্যারেজে বিস্ফোরণে দগ্ধ আটজনকে হাসপাতালটিতে ভর্তি করা হয়েছিল। গত রাতে মৃত্যু হয়েছে দগ্ধদের মধ্যে বেঁচে থাকা সর্বশেষ জনের।

এর আগে গত শনিবার (৬ আগস্ট) বেলা পৌনে ১২টার দিকে তুরাগ কামারপাড়া রাজাবাড়ি পুকুরপাড় এলাকায় গাজী মাজহারুলের রিকশার গ্যারেজের ভেতরে গড়ে তোলা ভাঙারির কারখানায় এই বিস্ফোরণ ঘটে। এতে মালিকসহ আটজন দগ্ধ হন। সেদিনই তাদের সবাইকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঘটনার দিন রাতেই মারা যায় আলমগীর হোসেন আলম (২৩) ও নূর হোসেন (৬০) নামের দুজন। এর পরদিন রোববার ভোরে গাজী মাজহারুল ইসলাম (৪৭) ও রাতে মারা যায় মিজানুর (৩৫)।
আর সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় মাসুম আলী (৩৫) ও এদিন দিবাগত রাত ৩টায় মারা যান আল আমিন (৩০)। এর পরদিন গত মঙ্গলবার শফিকুল ইসলাম (২৫) নামে আরও একজনের মৃত্যু হয়। মৃতদের মধ্যে মাজহারুল ছিলেন- ভাঙারির দোকানের লাগোয়া রিকশা গ্যারেজের মালিক, আর বাকিরা রিকশাচালক।

About admin

Check Also

সরকারের দেওয়া আশ্রায়ণের ঘর নিয়ে বিপাকে ভিক্ষুকপুত্র

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর পৌরসভায় সরকারের আশ্রায়ণ প্রকল্পের (খ শ্রেণি) ঘর পেয়েও সেখানে বসবাস করতে পারছেন না …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *